অপেক্ষার প্রহর শেষে পরীমনি ‘বিশ্বসুন্দরী’

ঢালিউডের অনিন্দ্য সুন্দরী নায়িকা পরীমনি। সর্বশেষ তিনি রূপালী পর্দায় দেখা দিয়েছিলেন গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত ‘স্বপ্নজাল’ ছবিতে। তারপর কেটে গেছে প্রায় এক বছর। অপেক্ষার প্রহর শেষে পরী ‘বিশ্বসুন্দরী’ হয়েই পর্দায় আসছেন, চয়নিকা চৌধুরীর প্রথম চলচ্চিত্রের নায়িকারূপে সিয়াম আহমেদের বিপরীতে।

৩ এপ্রিল বুধবার বিকেলে প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পরীকে চয়নিকা চৌধুরীর প্রথম সিনেমার নায়িকা হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। তাকে নিয়ে আসেন নায়ক সিয়াম আহমেদ। পরী মিষ্টি হাসি দিয়ে জানালেন কেন তিনি এতদিন সিনেমা করেননি। তিনি চাননি ‘স্বপজাল’ তাকে যে অবস্থানে নিয়ে এসেছে তা থেকে সরে যেতে।

পরীর মতে, ‘স্বপ্নজাল’র পর আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম আমি যদি ভালো চিত্রনাট্য না পাই আর কোনো ছবিতে অভিনয় করব না। আমি এখনো আমার সে সিদ্ধান্তে অটল আছি, থাকবও।

পরী অবশ্য ‘স্বপ্নজাল’ ছবির পর কাজ করেন একটি ওয়েবফিল্মে। গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘প্রীতি’ শিরোনামের ফিকশনটিতেও প্রশংসিত হয়েছে পরীর কাজ। তারই ধারাবাহিকতা রাখতে সচেষ্ট তিনি, এজন্যই বেছে বেছে কাজ করছেন। তিনি জানালেন চাইলেই একগাদা ছবির কাজ করতে পারেন তিনি, শুরুর দিককার মতো। কিন্তু এখন তা করবেন না, পরী এখন গল্পের প্রতি মনোযোগী।

পরী জানালেন চয়নিকা চৌধুরীর ছবির মাধ্যমে সুবর্ণা মুস্তাফার মতো গুণী অভিনেত্রীর সাথে স্ক্রীণ শেয়ার করতে পারবেন বলে তিনি দারুণভাবে উচ্ছ্বসিত। সিয়ামের সাথে তার প্রথম ছবি, চয়নিকা চৌধুরীর সাথে প্রথম ছবি; ঠিক যেন প্রথম ছবি করার অনুভূতি পাচ্ছেন এ লাস্যময়ী।

গিয়াস উদ্দিন সেলিমের মতোই পরী আস্থা রাখছেন চয়নিকা চৌধুরীর প্রতি, রুম্মান রশীদ খানের চিত্রনাট্যে তার সায় মিলেছে অবশেষে। দর্শকই শেষ পর্যন্ত বিচার করবে সিনেমার, কিন্তু পরী আশা করছেন দারুণ একটি কাজ হবে।

পরী জানালেন আরেকটি কাজের খবরও তিনি দিতে যাচ্ছেন সহসাই, সময় হলেই তা জানবেন সকলে। সে কাজটির জন্য প্রস্তুতি সারছেন তিনি।

পরীর প্রত্যাশামাফিক সবকিছু হলে দর্শক অন্যরকম পরীকে পাবে, যে পরীর জন্য দেড় বছর কেন আরো বেশিও অপেক্ষা করা যায়!

ছবি: রাজিন চৌধুরী ও সংগ্রহ