‘আব্বাস’ দেখলে দর্শকের টাকা উসুল হবে : সূচনা আজাদ

গতকাল (৫ জুলাই) শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে সাইফ চন্দন পরিচালিত ‘আব্বাস’। এ ছবি দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষিক্ত হয়েছেন সূচনা আজাদ। তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক নিরব হোসেন। সিনেমায় আসার আগে সূচনা মডেলিং করেছেন, নাটকেও দেখা গেছে এ সুদর্শনাকে। নিজের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবি ‘আব্বাস’ ও ক্যারিয়ার ভাবনা নিয়ে কথা বলেছেন তিনি।

‘আব্বাস’ ছবির চরিত্রটি নিয়ে কি বলবেন?

আমার চরিত্রটির নাম ডালিয়া। অনেক রাফ একটি চরিত্র। কেয়ারলেস মেয়ে, ডেয়ারিংও সে। তার মধ্যে ভালোবাসা, ক্ষোভ, অভিমান, ইমোশন ইত্যাদি আছে এরকম একটি চরিত্র।

কো-আর্টিস্ট হিসেবে নিরব কেমন ছিলেন?

তিনি অসাধারণ একজন মানুষ। খুবই হেল্পফুল। এত সিনিয়র একজন আর্টিস্ট, এতগুলো ছবি করেছেন, এত পপুলার। কিন্তু কাজ করতে গিয়ে একবারও মনে হয়নি একজন স্টারের সাথে কাজ করছি।

‘আব্বাস’ ছবিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা কেমন ছিল?

আমার পুরো জার্নিটাই মজার ছিল। কাজ করতে গিয়ে খুব ভালো লেগেছিল।

‘আব্বাস’ ছবিতে ‘ডালিয়া’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন সূচনা আজাদ

প্রমোশান তো করলেন অনেক . . .

আমরা ‘আব্বাস’ময় লাইফ লিড করছি গত কয়েকদিন। বিভিন্ন চ্যানেলে যাচ্ছি, ইন্টারভিউ দিচ্ছি। আমরা যা আশা করেছিলাম তারচেয়েও বেশি সাড়া পেয়েছি।  মানুষ এত বেশি সাপোর্ট করেছে যে তা অবিশ্বাস্য। আমাদের প্রত্যাশা ছাড়িয়ে গেছে।

প্রেক্ষাগৃহে ঘুরে কেমন অভিজ্ঞতা হলো?

আমরা প্রথমদিন মধুমিতা, বলাকাসহ কয়েকটি সিনেমাহলে ঘুরেছি। দর্শকের উপচেপড়া ভিড় ছিল। এমন হয়েছে আমরা দর্শকের সাথে ছবি দেখতে গিয়ে সিট না পেয়ে ফেরত এসেছি। আজও আমাদের সিনেমাহল ভিজিট করার কথা রয়েছে।

মধুমিতা সিনেমাহলে চিত্রনায়ক নিরব ও সূচনা

পর্দায় আপনার উপস্থিতি দর্শক কিভাবে নিয়েছে?

আমার গানের দৃশ্যে, সিগারেট খাওয়ার দৃশ্যে দর্শক সিটি মেরেছে, তালি বাজিয়েছে। এসব আমার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। দর্শকের এ উৎসাহ দেখে ভালো লেগেছে।

সিনেমা নিয়ে কিভাবে এগুতে চাচ্ছেন?

একটিং করা যাবে, একটিংয়ের স্পেস থাকবে; মানে নায়িকা শুধু শো-পিস হয়ে থাকবে এমন ছবিতে কাজ করবো না।  আমার ক্যারেক্টারের যদি একটিংয়ের কোন স্পেস না থাকে আমি কাজ করবো না। মানসম্পন্ন কাজ করতে চাই, আমার কোন তাড়া নেই। দুই বছরে একটা সিনেমা করলেও আমি হ্যাপি থাকব।

মানসম্পন্ন ছবিতে কাজ করতে চান সূচনা

‘আব্বাস’ এর পর কোন ছবিতে আপনাকে দেখা যাবে?

আমার কাছে বেশ কয়েকটা অফার এসেছে। আমি মিটিংগুলো করতে পারছিনা। ‘আব্বাস’ এর আবেশ শেষ হলে আমি মিটিংগুলো করব।  এরপরই ইনশাআল্লাহ খবর দিতে পারবো।

দর্শককে কি বার্তা দিতে চান?

দর্শককে বলবো থ্যাংক ইউ সো মাচ আমার প্রথম ছবি ‘আব্বাস’ গ্রহণ করার জন্য। যারা এখনো দেখেননি তারা প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে অবশ্যই ‘আব্বাস’ দেখুন। আই হোপ আপনারা অনেক এনজয় করবেন। হতাশ হবেন না, নিরাশ হবেন না, আপনাদের টাকা উসুল হবে।