আর্মি অফিসার হতে চেয়েছিলেন নূসরাত ফারিয়া

ছোটবেলায় আর্মি অফিসার হতে চেয়েছিলেন সময়ের আলোচিত চিত্রনায়িকা নূসরাত ফারিয়া। মাছরাঙা টেলিভিশনের ঈদ আয়োজন ‘ম্যাড ক্যাফে’-তে বিশেষ অতিথি হয়ে এসে এমনটিই জানালেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, ‘একবার এক জ্যোতিষী আমাকে নিয়ে বলেছিলেন, আমি যদি কোনো কাজ ৭০%-ও মন থেকে করি, সে কাজটি সফল হবেই হবে। কথাটি শুনে ভালো লাগলেও সে মুহূর্তে অতটা সিরিয়াসলি নেইনি। তবে আজ বুঝতে পারছি, ওটাই সত্য। আমি এখন পর্যন্ত যে কাজটি বিশ্বাস করিনি কিংবা মন দিয়ে করতে পারিনি, সেটিই ব্যর্থ হয়েছে।’

সম্প্রতি ওপার বাংলায় তার নতুন চলচ্চিত্র ‘বিবাহ অভিযান’ ব্যবসাসফল হয়েছে। কমেডি চলচ্চিত্র মানেই প্রায়শ:ই অভিনয়শিল্পীদের উচ্চকিত অভিনয় করতে হয়। আর সে কারণেই হয়তো এবারের ঈদে মাছরাঙা টেলিভিশনের কমেডি শো ‘ম্যাড ক্যাফে’ তেও বিশেষ অতিথি হয়ে দর্শকের সামনে হাজির হচ্ছেন নূসরাত ফারিয়া।

তানভীর হোসেন প্রবালের উপস্থাপনায় মজার সব পাগলামীর মধ্যিখানে এসে পড়েছেন ফারিয়া। এই শো’তেই তিনি জানান, ছোটবেলায় হতে চেয়েছিলেন আর্মি অফিসার। কিন্তু কিভাবে যেন কি হয়ে গেল। বিতার্কিক, আরজে, উপস্থাপক, মডেল, চিত্রনায়িকা-এক ফারিয়ার এখন নানা রূপ। আর সেসব রূপ নিয়েই মজার কিছু ঘটনা দর্শকদের সামনে তুলে ধরেছেন তিনি ‘ম্যাড ক্যাফে’ অনুষ্ঠানে। জানিয়েছেন, জীবনের প্রথম পারিশ্রমিক ছিল ৫০০ টাকা। বিতার্কিক হিসেবে পেয়েছিলেন। প্রয়াত সালমান শাহের বিপরীতে অভিনয় না করার আক্ষেপ রয়ে যাবে আজীবন, তবে সুযোগ পেলে হৃতিক রোশনকে নায়ক হিসেবে চান ফারিয়া।

‘ম্যাড ক্যাফে’ আসছে ঈদের ২য় দিন রাত ৮টায় মাছরাঙা টেলিভিশনে প্রচারিত হবে। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেছেন মনিরুজ্জামান খান।