চার দিনব্যাপী বাংলাদেশী চলচ্চিত্র নিয়ে কলকাতায় উৎসব

কলকাতায় চার দিনব্যাপী বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নিয়ে উৎসব শুরু হচ্ছে। উৎসবে দেখানো হবে বাংলাদেশের ২৩টি চলচ্চিত্র।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এই উৎসবের কথা জানিয়ে কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপ হাইকমিশনার তৌফিক হাসান বলেছেন, উৎসবের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা গৌতম ঘোষ। উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশের এক ঝাঁক চিত্রতারকা।



কলকাতার নন্দন ২ প্রেক্ষাগৃহে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেখানো হবে ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’। তৌফিক হাসান বলেছেন, দুই দেশের সাংস্কৃতিক বন্ধন আরও দৃঢ় এবং দ্বিপক্ষীয় বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও নিবিড় করার লক্ষ্য নিয়েই আযোজন করা হয়েছে এই চলচ্চিত্র উৎসবের।

জানা গেছে, উৎসবের ছবিগুলি দেখানো হবে নন্দনের তিনটি প্রেক্ষাগৃহ ও নজরুল তীর্থ-এর ২ নম্বর প্রেক্ষাগৃহে। বাংলাদেশের তথ্য মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই উৎসবের আযোজন করেছে কলকাতাস্থ বাংলাদেশ উপহাইকমিশন।



উৎসবে যে ছবিগুলি দেখানো হবে সেগুলি হল ‘পুত্র’, ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’ (প্রামাণ্য চিত্র), ‘পোস্টমাস্টার ৭১’, ‘স্বপ্নজাল’, ‘দহন’, ‘রাজনীতি’, ‘হেডমাস্টার’, ‘জীবনঢুলি’, ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’, ‘ঘেটুপুত্র কমলা’, ‘নুর মিয়া ও তার বিউটি ড্রাইভার’, ‘গহীন বালুচর’, ‘আলফা’, ‘জান্নাত’, ‘জন্মভূমি’, ‘রাজপুত্র’, ‘পাঠশালা’, ‘সনাতন গল্প’, ‘মহুয়া সুন্দরী’, ‘জাগে প্রাণ পতাকায় জাতীয় সংগীতে’, ‘খাঁচা’, ‘গেরিলা’ ও ‘চিত্রা নদীর পাড়ে’।