বড় জয়ে সেমির আশা বাঁচিয়ে রাখলো বাংলাদেশ

টানা দুই ম্যাচে হারার পর শ্রীলঙ্কার সাথের ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় দলের ভবিষ্যত নিয়ে সংশয়ে পড়ে গিয়েছিল অনেকেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপরীতে চাপে ছিল বাংলাদেশই। টনটনের ছোট মাঠে মারকুটে ওয়েস্ট ইন্ডিয়ানরা কী না কী করে বসেন বাংলাদেশের সাথে। তার উপর টসে জিতে বোলিং বেছে নিলেন মাশরাফি। দলে নেই রুবেল। পরিবর্তন বলতে মিথুনের জায়গায় লিটন দাস। প্রায় অপরিবর্তিত দল নিয়ে জুয়া খেললেন না তো মাশরাফি?

প্রথম ওভারে গেইলকে বোতল বন্দী করে রাখলেন মাশরাফি। তুলে নিলেন মেডেন। এরপর গেইল আর হাত খুলতে পারলেন কই। সাইফুদ্দিনের শিকার হবার আগে খেললেন ১২টি বল, করতে পারেননি একটিও রান। শূণ্য রানে ফিরলেন ক্রিস গেইল। এরপর বুদ্ধি করেই বোলিং পাল্টে গেলেন মাশরাফি। মাঝপথে হেটমায়ার, হোল্ডার ছোট ছোট ক্যামিও খেললেন। শাই হোপের ৯৬, লুইসের ৭০ – এ ৩২১ রানের স্কোর দাঁড় করাল উইন্ডিজ। তিনটি করে উইকেট পকেটে পুরেন মুস্তাফিজ ও সাইফুদ্দিন। সাকিবের ঝুলিতে জুটলো দুটো উইকেট, দুটোর একটি লুইসের। যিনি কিনা শাই হোপের সাথে জুটি জমিয়ে তুলছিলেন।

৩২২ রান করতে হলে যেমন সূচনা প্রয়োজন হয় তাই হলো। ছোটখাট ঝড় তুলে আউট হলেন সৌম্য। উদ্বোধনী জুটিতে উঠলো ৫২ রান। এরপর তামিম – সাকিব দ্বৈরথে পায়ে এগুতে লাগলো বাংলাদেশ। সবাই যখন অপেক্ষায় ছিল তামিম এবারের বিশ্বকাপে প্রথম অর্ধশত পেয়ে যাবেন তখনই ছন্দপতন। ক্ষণিকের ভুলে রানআউটের শিকার হলেন তামিম। কয়েক বলের মধ্যে মুশফিকুরও যখন ফিরলেন তখন দর্শকের মনে দ্বিধা। পথ হারাচ্ছে না তো বাংলাদেশ। তখনও যে নতুন অঙ্ক কষছেন এ পর্যন্ত অত্যন্ত ধারাবাহিক সাকিব আল হাসান। বড় আসরে ভালো না করলে এলিট শ্রেণীতে যাওয়া হবে না, সেজন্যই কিনা এ বিশ্বকাপে নিজের ব্যাট দিয়ে বিশ্বকাপ নিজের করে নিতে চাইছেন সাকিব আল হাসান, কে জানে?

সাকিব টানা দ্বিতীয় শতক তুলে জয় সহজ করেছেন

টানা তিন ম্যাচে দর্শক সারিতে বসে থাকা চলতি সময়ের মারকুটে লিটন দাসকে সঙ্গী করে সাকিব রচনা করলেন ক্রিকেটের সনেট। সেই ১৩৩ রানে মুশফিক আউটের পর আর উইকেটই পড়তে দিলেন না দুজনে। ১৮৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ম্যাচ করে নিলেন বাংলাদেশের। নিজের প্রথম বিশ্বকাপের ম্যাচে ৯৪ রানে অপরাজিত রইলেন লিটন, আক্ষেপ বাড়ালেন। উইন্ডিজ আর কয়টি রান বেশি করতে পারলে লিটন যে অভিষেকেই শতক পেয়ে যান! মাত্র ৬৯ বলে ৮ চার ও ৪ ছক্কায় সাজানো ইনিংসে লিটন নিজের জাত চেনালেন পুরো ক্রিকেট বিশ্বকেই। আর সাকিব, দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিতে দিতে তুলে নিয়েছেন বিশ্বকাপে নিজের দ্বিতীয় শতক; হয়েছেন এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

লিটন খেলেছেন এক ঝড়ো ইনিংস

৫১ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে নিলো বাংলাদেশ। ৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় উঠে এসেছে ৫ নম্বরে। আক্ষেপটাও যেন বেড়ে গেল এতে। নিউজিল্যান্ডের সাথে ম্যাচটি জিততে পারলে পয়েন্ট হতো ৭, তখন যে শীর্ষ তিনে থাকা যেত! তবে, ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সেমির আশা বাঁচিয়ে রাখলো বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩২১/৮ (শাই হোপ ৯৬, লুইস ৭০, হেটমায়ার ৫০, মুস্তাফিজ ৫৯/৩, সাইফুদ্দিন ৭২/৩, সাকিব ৫৪/২)

বাংলাদেশ ৩২২/৩ (৪১.৩) (সাকিব ১২৪*, লিটন দাস ৯৪*, তামিম ৪৮, রাসেল ৪২/১)

মতামত দিন