‘মানি হানি’ ভালো কিছু হবে : নিশাত প্রিয়ম

ঈদ উপলক্ষ্যে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘হইচই’ রিলিজ করেছে সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত ওয়েব সিরিজ ‘মানি হানি’। গেল ৫ জুন থেকে স্ট্রিমিং শুরু হয়েছে সিরিজটির। বাংলাদেশের একটি ব্যাংক ডাকাতির ঘটনাকে ভিত্তি করে ওয়েব সিরিজটি নির্মাণ করেছেন তানিম নূর ও কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়। এ সিরিজের ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর অমিতাভ রেজা চৌধুরী। এখন অব্দি তিনটি পর্ব প্রকাশ করা হয়েছে। এই সিরিজের একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন নবীন মডেল – অভিনেত্রী নিশাত প্রিয়ম। এই সিরিজটি সম্পর্কে নিজের অভিজ্ঞতা জানালেন তিনি।

নিশাত প্রিয়ম বললেন, বাংলাদেশের সেকেন্ড ওয়েব সিরিজ এটি ‘হইচই’ – এ। এটা নিয়ে সবারই ইন্টারেস্ট বেশি, আশাটাও বেশি। হয়তোবা ভালো কিছু হবে।

‘মানি হানি’ ওয়েব সিরিজের একটি দৃশ্যে নিশাত প্রিয়ম

‘মানি হানি’ – তে নিশাতের চরিত্রের নাম সেঁজুতি। চরিত্রটি নিয়ে নিশাত বললেন, ঢাকায় পড়াশোনা করা পিতৃ – মাতৃহীন মেয়ে সেঁজুতি। সৎমা এবং সৎ ভাইয়ের সাথে থাকে। সে একটু ডানপিটে ধরনের, রগচটা ধরনের একরোখা মেয়ে। কুষ্টিয়াতে তার বাবার বাসা। এই ধরনের একটি মেয়ের জার্ণিটা যেমন হয় নরমালি, তার যাওয়ার পথেই মূলত সে অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ে।

‘মানি হানি’ – তে একজন ডানপিটে, একরোখা মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিশাত প্রিয়ম

ঢাকাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে সিরিজটির শুটিং হয়েছে। এ প্রসঙ্গে নিশাত বললেন, আমরা শুটিং করেছি এ পর্যন্ত পুরনো ঢাকা, গাজীপুর, কুষ্টিয়া ইত্যাদি লোকেশানে।

‘মানি হানি’ ওয়েব সিরিজের পোস্টার

শুটিং ইউনিটের সকলেই আন্তরিক ছিলো বলে জানান এ অভিনেত্রী। তিনি এ বিষয়ে বলেন, ওভারঅল পুরো টিম অনেক হেল্পফুল। আমার কো আর্টিস্টরা অনেক হেল্পফুল। শ্যামল মওলা, ইমরান, জর্জ ভাই, সুমন আনোয়ার সবাই অনেক হেল্পফুল।

‘মানি হানি’র একটি দৃশ্যে নিশাত প্রিয়ম ও শ্যামল মওলা

সিরিজটি শুটিং এখনো শেষ হয়নি বলেও জানালেন নিশাত প্রিয়ম, কয়েকদিনের শুটিং বাকি। সহসাই শুটিং শুরু হবে বলে জানালেন তিনি। যদিও প্রায় ৩-৪ মাস ধরে তারা কাজটি করছেন।

নিশাত কথা প্রসঙ্গে আরো জানালেন এই সিরিজের গল্প এখনো শুরুই হয়নি, ধীরে ধীরে মূল গল্পে প্রবেশ করবে দর্শক। তখন বোঝা যাবে দর্শক কতটা পছন্দ করছে এ ওয়েব সিরিজ।

উল্লেখ্য, এই ওয়েব সিরিজে নিশাত প্রিয়ম ছাড়াও অভিনয় করেছেন শ্যামল মওলা, মোস্তাফিজুর নূর ইমরান, সুমন আনোয়ার, লুৎফর রহমান জর্জ, নাজিবা বাশার প্রমুখ। প্রতি সপ্তাহে ‘হইচই’-এ সিরিজের তিন পর্ব করে প্রকাশ করা হচ্ছে।