No icon

দেশী শিল্পীর কাজ ও ব্যক্তিত্বকে আলাদা করতে পারছি না : মৌটুসী

অভিনেত্রী মৌটুসী বিশ্বাস কয়েক মাসের বিরতি শেষে সম্প্রতি অভিনয়ে ফিরেছেন এ প্রসঙ্গ ও অন্যান্য বিষয়ে কথা বলেছেন তিনি 


প্রায় পাঁচ মাস পর কাজে ফিরলেন কী অভিজ্ঞতা হলো?

আগস্টের ৭ তারিখ থেকে কাজ শুরু করেছি দুটো প্রজেক্টে কাজ করা হয়েছে একটি হলো ধারাবাহিক ‘আগুনপাখি’, অন্যটি একটি শর্টফিল্ম আমার কাছে মনে হয়েছে টেলিভিশন সংশ্লিষ্ট যারা তারা করোনাকে হালকাভাবে নিয়েছেন অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমার কিছু সীমাবদ্ধতা থাকে মেকআপ নেয়ার পর আমি মাস্ক ব্যবহার করতে পারছি না ডায়লগ দিতে হয়, অভিনয় করতে হয় নিজের বা পরিবারের কথা না ভাবলেও পেশাগতভাবে আমাদের কথা ভেবে স্বাস্থ্য সচেতনতা জরুরী তবে শর্টফিল্মের ইউনিটটা বেশ বড় ছিলো তারা এ বিষয়ে বেশ সচেতন ছিলো টেলিভিশন সংশ্লিষ্টদের প্রতি আমার প্রত্যাশা বেশি ছিলো প্রতিবার যেটা হয় আমি কাজ শেষে কোয়ারেন্টাইনে ঢুকে যাই আমার ইউনিটের কেউ আক্রান্ত হলে আমি সুস্থ আছি কিনা তা বুঝতে দুই সপ্তাহ লাগে এমন একটি কোয়ারেন্টাইন আমি পার করেছি এরপর অন্য কাজটি করার পর অল্প কয়েকদিনের একটা কোয়ারেন্টাইন পার করলাম এর আগে দূরন্ত টিভিতে একটা ডাবিংয়ের কাজ করেছি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে ওরা বেশ সচেতন

করোনাকাল কেমন কাটছে?

আমি লকডাউনের আগে গিটার বাজানো শিখতাম এতদিন ক্লাস বন্ধ ছিলো সম্প্রতি অনলাইনে ক্লাস শুরু হয়েছে কিছু বই পড়লাম বাতিঘর ও রকমারি থেকে বই আনালাম নেটফ্লিক্সে কিছু সিরিজ শেষ করেছি ক্লাসিক মুভি দেখলাম ফেসবুকে সেসব জানাচ্ছি অন্যরাও আমাকে জানাচ্ছে কে কী পড়ছে বা দেখছে

ইউটিউবে সিনেমা রিভিউ দিতেন এখন আর দিচ্ছেন না . . .

ওটা এখন বন্ধ খেয়াল করে দেখলাম ইতিবাচক রিভিউগুলো দর্শক ভালোভাবে নিচ্ছে না আমি তো আমার মতামতটাই জানাতাম কিন্তু দেখলাম নেতিবাচক রিভিউগুলোর ভিউ বেশি হচ্ছে বিষয়টা আমাকে টানছিলো না

কিছুদিন আগে ‘ত্রিকোণমিতি’ নাটকের কিছু ক্লিপ ভাইরাল হলো . . .

প্রায় দশ বছর আগে কাজটি করেছিলাম আমাকে অনেকে ক্লিপগুলো ইনবক্স করেছে শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা সুখকর ছিলো না আমার চরিত্রের নামও মনে ছিলো না এতদিন পর নাটকটি নিয়ে দর্শকের এত সাড়ায় অবাক হয়েছি আমার মনে হয় নাটকের মেকিং নিয়ে দর্শকের খুব একটা আগ্রহ নেই তারা কনসেপ্ট নিয়ে বেশি আগ্রহী যারা নিজেদের গল্পের সাথে সম্পৃক্ত করতে পেরেছে তারা নাটকটি দেখছে, আলোচনা করছে খুব ভালো লেগেছে

ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলো বেশ আলোচিত হচ্ছে এ প্ল্যাটফর্ম নিয়ে আপনার দৃষ্টিভঙ্গি কী?

ওটিটি কী সেটি বুঝতে হবে কনটেন্ট ওটিটি না ইউটিউবের জন্য বানানো হচ্ছে সেটা বোঝা জরুরী কারণ ওটিটিতে টাকা দিয়ে দর্শককে কনটেন্ট দেখতে হয় আমি শিল্পী আমাকে কীভাবে দর্শকের সামনে তুলে ধরবে তা নির্মাতার দায়িত্ব মাত্র তো শুরু হলো আরও অনেকদূর যাওয়া বাকি টেলিভিশনে অনেকগুলো চ্যানেলের জন্য একটি সাবস্ক্রিপশন ফি দিতে হয় অন্যদিকে প্রতিটি ওটিটির জন্য আলাদাভাবে অর্থ দিতে হয় সেজন্য কনটেন্ট বড় বিষয় ওটিটির কাজ মাত্র শুরু হলো ভালো কাজ হচ্ছে ওটিটিতে ভুল ভ্রান্তি করতে করতে আমরা এগুবো আমরা এখনও শিখছি বিদেশি ওটিটি দেখছি আলোচনা সমালোচনা চলতেই থাকবে শেষ পর্যন্ত ভালো প্রোডাক্ট পাওয়া গেলে আমরা সকলেই লাভবান হবো আমরা ভালো কনটেন্টে কাজ করতে চাই এরকম মাধ্যম যতো বাড়বে কাজ করার সুযোগ ততো বাড়বে 

আমরা শুরুতেই সমালোচনা করে দর্শকের প্রতি কী নেতিবাচক বার্তা দিচ্ছি না?

অবশ্যই দর্শকরা তো নেতিবাচকভাবে নিয়েই বসে আছে ভালো কনটেন্ট পেলে দর্শক বুঝবে একটা বা দুটো কাজের মাধ্যমে দর্শককে মিসগাইড করলে তো হবে না দর্শককে বোঝানো হয়েছে ইউটিউবের জন্য নাটক করা হয়েছে আসলে তো তা নয় ক্লিপ দেখে পুরো গল্প বোঝা যায় না ওটিটির কনটেন্টের পাইরেসি নিয়ে কেউ কিছু বললো না আমরা বাইরের কাজ দেখে শিল্পীদের কাজের প্রশংসা করছি অথচ দেশের কোনও শিল্পীর কাজ দেখে তার কাজ ও ব্যক্তিত্বকে আলাদা করতে পারছি না আমি জনপ্রিয়তা যা পাওয়ার ক্যারিয়ারের শুরুতে পেয়েছি এখন নিজের ভালো লাগা থেকে কাজ করছি অভিনয় নিয়ে ভাঙা – গড়া করছি সমালোচনাকে পেছনে ফেলে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে

 

 

Comment As:

Comment (0)