No icon

শুটিং সংশ্লিষ্টদের আরও সচেতন হওয়া প্রয়োজন

অভিনেত্রী শামীমা ইসলাম তুষ্টি নাটকের ব্যস্ততা ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন তিনি 


কাজ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়লেন . . .

করোনার সময় বাসায় শুটিং করলেও এখন সাহস করে বাইরে কাজ করছি গোলাম সোহরাব দোদুল ভাইয়ের একটা কাজ করলাম ‘টিপু সুলতান’, ‘চিটিং মাস্টার’ ইত্যাদি সিরিয়ালের কাজ চলছে এ ছাড়াও নতুন সিরিয়ালে কাজ করছি এভাবেই যতটুকু পারছি কাজ করছি

এ সময়ে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন হচ্ছে?

ভয়াবহ অভিজ্ঞতা সংশ্লিষ্টদের আরও সচেতন হওয়া প্রয়োজন মেকআপ করার পর শিল্পীদের মাস্ক পরে থাকা কঠিন মাঝে বিজ্ঞাপনের কাজ করলাম, সেখানে মাস্ক পরে থাকার চেষ্টা করেছি অন্যান্য যারা জড়িত থাকেন তারা আরও সচেতন হতে পারতেন সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলো আরেকটু জোরদার ভূমিকা নিলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা সহজ হতো তাহলে আরামে কাজ করা যেতো

ওয়েব প্ল্যাটফর্ম জনপ্রিয় হচ্ছে আবার সমালোচনাও হচ্ছে কিছু কাজ নিয়ে বিষয়টি নিয়ে কী বলবেন?

আমরা বরাবরই পে চ্যানেলের পক্ষে ছিলাম বিজ্ঞাপনের জন্য নাটক তো দেখা যায় না একই রকম গল্প, একই মুখ দেখতে হয় তাই এ প্ল্যাটফর্ম জনপ্রিয় হচ্ছে এখন আমাদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে তাই ইচ্ছা হলে আমি নেটফ্লিক্স দেখব, নাহয় ইউটিউব দেখব টাকা দিয়ে কেন আমি বিজ্ঞাপন দেখবো? ইচ্ছে করলেই মানুষ চ্যানেল খুলে ফেলছে মানের বিষয়ে প্রশ্ন উঠছে নতুন সবকিছুকেই গ্রহণ করতে হবে নাহলে তো বাংলাদেশ পিছিয়ে পড়বে বাইরের ওটিটিতে আমরা অহরহ খোলামেলা দৃশ্য দেখছি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ঠিক করতে হবে কনটেন্ট কোন ক্যাটাগরিতে যাবে শিল্পীর এখানে দোষ নেই ওপেন প্ল্যাটফর্মে এমন কিছু দেয়া ঠিক না পাইরেসিও হচ্ছে সবকিছু মিলিয়ে জায়গাটাকে মসৃণ করার জন্য যতটুকু দরকার ততটুকু নীতিমালা করা প্রয়োজন

‘আমরা মানুষ ফাউন্ডেশন’ এর কার্যক্রম কেমন চলছে?

ঈদ পর্যন্ত কাজ করেছি এরপর আমার মা অসুস্থ থাকায় আর কাজ করা হয়নি আগামী বছর বাংলাদেশের স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর উদযাপন করা হবে সে উপলক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের সাক্ষাৎকারের আর্কাইভ করছি ওয়েব প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম যাতে এর সাথে যুক্ত হয় এজন্য কিছু কাজ করছি জানুয়ারি থেকে বাচ্চাদের ও নারীদের নিয়ে নিয়মিত কাজ করার ইচ্ছে আছে

‘একটর্স ইকুইটি’ থেকে কী পদক্ষেপ নিয়েছেন এ সময়ে?

গেল পাঁচ মাসে প্রায় ২০০ জন শিল্পীকে সহযোগিতা করেছি আমরা রাষ্ট্রীয়ভাবে কোনরকম সহযোগিতা করেনি আমরা নিজেরাই নিজেদের প্রায় ৪০ লাখ টাকার সহযোগিতা করেছি দুজনের কিডনি চিকিৎসায় পঞ্চাশ হাজার করে, একজনের ক্যান্সার চিকিৎসায় এক লাখ টাকা দিয়েছি এরকম করে আমরা সহযোগিতা করেছি এখন আমরা রাষ্ট্রীয়ভাবে বড় তহবিল গঠনের জন্য কাজ করছি যাতে করে কল্যাণ তহবিলের মাধ্যমে শিল্পীরা প্রয়োজনে অর্থ সহায়তা পেতে পারে

মঞ্চের কী খবর?

এখন তো মঞ্চের কাজ হচ্ছে না তবে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ নিয়ে মঞ্চের একটা কাজ করছি সামনে টেলিভিশনেও প্রচার হবে এখানে অনেকেই কাজ করছেন যেমন সাজু খাদেম, ফজলুর রহমান বাবু, তুষার খান, আমি প্রমুখ লিখেছেন মান্নান হীরা

ফেসবুক লাইভ শো’য় তো আর নিয়মিত নন?

শুরুর দিকে আমি ও আমার স্বামী লাইভ শুরু করেছিলাম এখন এত লাইভ হচ্ছে যে মানুষ বিরক্ত হয়ে গেছে আমার অনেক ভিউ ছিলো প্রচুর দর্শক করতে বলে কিন্তু সময়ের অভাবে আর করা হচ্ছে না

Comment As:

Comment (0)