No icon

পারিবারিক গল্পের নাটক বেড়েছে : শিখা খান মৌ

অভিনেত্রী শিখা খান মৌ। করোনাকালে কাজে ফিরেছেন গত ২৩ জুন। কাজ শুরু করার পর ৮ পর্বের একটি ধারাবাহিকসহ মোট ২২টি নাটকে কাজ করেছেন। জানিয়েছেন এর মধ্যে অধিকাংশই পারিবারিক গল্পে নির্মিত হয়েছে। সবগুলো নাটকই এবার ঈদে প্রচার হবে বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি।

শিখা মৌ বলেন, আগে দেখা যেত বাবা – মা’র চরিত্র ছোট করে ফেলা হতো। এবার অধিকাংশ নাটকে এর ব্যতিক্রম দেখা গেছে। বাবা, মা এসব চরিত্রের পাশাপাশি দাদা, দাদির চরিত্রও এসেছে নাটকে। দেখা গেছে নায়ক বা নায়িকার কাছাকাছি পরিমাণ দৃশ্যে থাকছে বাবা বা মা। বিষয়টা ভালো লেগেছে। এ জন্য আমাকেও ব্যস্ত থাকতে হয়েছে।

তিনি যোগ করে বলেন, করোনার জন্য সকলে সাবধানতা অবলম্বন করে কাজ করেছেন। একটু পরপর সাবান দিয়ে হাত ধুয়েছেন। মাস্ক, গ্লাভস ব্যবহার করেছেন। স্যানিটাইজারের ব্যবহারও ছিল লক্ষ্যনীয়।

মেকআপ করতে বেশ সমস্যায় পড়তে হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন এ অভিনেত্রী। সারাজীবন মেকআপ আর্টিস্টের মেকআপ নিয়ে কাজ করেছেন। এবার দেখা গেছে প্রায় নাটকেই নিজের মেকআপ নিজে নিতে বলা হচ্ছে। এ নিয়ে তিনি বলেন,  আমি নিজে মেকআপ নিতে পারি না। মেকআপ আর্টিস্টদের সহায়তা লাগে। এবার নিজেই সেজে আসতে হয়েছে। এতে বেশ অসুবিধায় পড়তে হয়েছে। চরিত্রে মনোযোগ দিব নাকি মেকআপ করব। এ ছাড়া তাদের জন্য খারাপও লেগেছে। তাদেরও তো চলতে হবে। অন্তত একজন মেকআপ আর্টিস্টকে কাজে লাগানো যেতেই পারতো।

এবার বেশ নিয়ম মেনে শুটিং করতে হয়েছে বলে জানান শিখা। বাদ গেছে আউটডোরের অধিকাংশ শুটিং। তিনি হতাশার সুরে বলেন, আমার মনে হয় আগের অবস্থাই ভালো ছিলো। এখন অনেক বিধি নিষেধ মেনে কাজ করতে হয়েছে। দেখা গেল হাসপাতালে শুটিং না করে একটা বাসায় সেট ফেলে কাজ করতে হয়েছে। এতে করে পূর্ণাঙ্গ আমেজ আসে না। এভাবে কাজ করতে বাজেট প্রয়োজন। তাও তো আমাদের নেই। কম বাজেটে সেট বানিয়ে কাজ করা অনেক কষ্টসাধ্য। এতে করে অভিনয়টা জমে না। আমাদের অভিনয়ের ব্যপ্তি দরকার।

এবারের ঈদে শিখা অভিনীত নাটকগুলো বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হবে। তিনি সকাল আহমেদ, আকাশ রঞ্জন, কামরুল হাসান ফুয়াদ, জুয়েল হাসান, হিমু আকরাম, এস কে শুভ, সরদার রোকন, রাজিবুল ইসলাম রাজিব, জুবায়ের ইবনে বকর, লিটু করিম, মেহেদি হাসান হৃদয়, রেজানুল হাসান, তানভীর তন্ময়, ইমরাউল রাফাত, হিমি, আশরাফ অপি, ওসমান মিরাজ, অলোক হাসান, বেদুইন হায়দার লিওর কাজ করেছেন। কিছু নাটক বিভিন্ন ইউটিউব চ্যানেলেও প্রচার হবে।

এদিকে শিখা জানিয়েছেন ঈদের পর তিনি নিয়মিত ধারাবাহিকে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন। তার মধ্যে রয়েছে খান বাড়ি বাড়াবাড়ি, খেলাঘর, ভদ্রপাড়া, উকিল বাড়ি, মুশকিল আহসান প্রাইভেট লিমিটেড। করোনাকালে ধারাবাহিকগুলোর শুটিং বন্ধ আছে। ঈদের পর ফের শুটিং শুরু হবে।

Comment As:

Comment (0)