No icon

আমি ভালো ডেজার্ট বানাতে পারি : সেলিনা আফ্রি

এ মাসে নতুন ছবির শুটিংয়ে থাকার কথা ছিল তার। কিন্তু তিনি আছেন বাসায়। ডুবে আছেন আপন ভুবনে। বলছি চলতি সময়ের মডেল - অভিনেত্রী সেলিনা আফ্রির কথা। করোনাভাইরাস প্রকোপের দিনে ঘরবন্দি আছেন তিনি। আফ্রি ঘরবন্দি দিনগুলো কেমন কাটাচ্ছেন জানতেই কথা হলো তার সঙ্গে।

'নেটফ্লিক্স দেখছি। পছন্দের ওয়েব সিরিজগুলো দেখছি এ সময়ে।' আফ্রির চটপট জবাব। কি ওয়েব সিরিজ দেখছেন জানতে চাইলে বললেন মানি হেইস্ট তার পছন্দের। উইচার - ও দেখছেন।

আফ্রি প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ভক্ত। কলেজে থাকতে বইমেলায় ঘুরে ঘুরে তার বই সংগ্রহ করতেন। এখন সময় পেয়ে প্রিয় লেখকের বইয়ে ডুব দিয়েছেন সুন্দরী আফ্রি।

রান্নার কথা জানতে চাইলে আফ্রি বললেন, 'আমি ডেজার্ট বানাতে পারি। মিষ্টি জাতীয় খাবারগুলো। ক্ষির, ফিন্নি, দুধের সেমাই ভাল পারি। পুডিং এখনও পারিনা, হয়তো শিখে যাব। '

আফ্রি মাসুম রেজার 'স্টেশন' সিনেমায় যুক্ত হয়েছেন। এ সিনেমায় তার বিপরীতে আবু হুরায়রা তানভীর। ৬ এপ্রিল থেকে সিনেমাটির শুটিং শুরু হবার কথা ছিল। করোনার দিন ফুরালে সেই সিনেমা দিয়েই কাজ শুরু করবেন তিনি।

সেলিনা আফ্রি অভিনীত 'নীল ফড়িং' মুক্তি পাবার কথা ছিল মার্চের ২৭ তারিখে। তাও হয়নি নানা কারণে।

দুটো সিরিজের কাজ করেছেন আফ্রি। সেগুলো হলো 'আলো ছায়ার কাব্য' ও 'অনেক বেশি পেইনে আছি'।

করোনাভাইরাস সচেতনতায় কয়েকটি ভিডিও করেছেন আফ্রি। দেখিয়েছেন কীভাবে হাত ধুতে হয়। মানুষকে সচেতন থাকার পরামর্শও দিয়েছেন আফ্রি।

আফ্রি এই সময়ে 'লাইকি' তে ভিডিও আপলোড করছেন। বিভিন্ন গানে তাকে পারফর্ম করতে দেখা যাচ্ছে।

সম্প্রতি কয়েকটি বিজ্ঞাপন ও ফটোশুটে দেখা গেছে আফ্রিকে। 'মিস্টার নুডলস' - এর একটিসহ আরও কয়েকটি বিজ্ঞাপন সামনে আসবে।

আকর্ষণীয় দেহবল্লরীর আফ্রি আশা করছেন হতাশার দিন কেটে যাবে। করোনাভাইরাস সরে গিয়ে কর্মব্যস্ত জীবনের শুরু হবে।

Comment As:

Comment (0)