প্রতিবন্ধকতার মধ্যেও নির্মাতারা সিনেমা বানান শুধুমাত্র দর্শকদের জন্য : তিশা

অনেক প্রতিবন্ধকতার মধ্যেও নির্মাতারা সিনেমা বানান শুধুমাত্র দর্শকদের জন্য – ‘মায়াবতী’ চলচ্চিত্রের মুক্তি উপলক্ষে আয়োজিত আড্ডায় এমনটিই বললেন এ চলচ্চিত্রের নাম ভূমিকায় অভিনয় করা অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। গতকাল (৯ সেপ্টেম্বর) সোমবার রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় আড্ডায় মেতে উঠেছিলেন চলচ্চিত্রটির অভিনয় শিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক, পরিবেশক, গণমাধ্যমকর্মীসহ সংশ্লিষ্টরা। সেখানেই নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন তিশা।

আসছে ১৩ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘আলতাবানু’ – খ্যাত নির্মাতা অরুণ চৌধুরীর দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘মায়াবতী’। চলচ্চিত্রটির কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন অরুণ চৌধুরী। এ চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন রাইসুল ইসলাম আসাদ, মামুনুর রশীদ, দিলারা জামান, আফরোজা বানু, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, তানভীর হোসেন প্রবাল, ফজলুর রহমান বাবু, নরেশ ভূঁইয়া প্রমুখ।

‘মায়াবতী’ চলচ্চিত্রটি দাঁড়িয়ে আছে ‘No means no’ এই সংলাপের উপর। সে প্রসঙ্গে তিশা বলেন, পৃথিবীর প্রত্যেক মানুষের না বলার অধিকার আছে-সবার উচিত এটাকে সম্মান করা। আর এই মেসেজটা নিয়েই অরুণ চৌধুরী ‘মায়াবতী’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন। আমরা চেষ্টা করেছি বিষয়টি সুন্দরভাবে সিনেমায় উপস্থাপন করতে।

‘মায়াবতী’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা ও ইয়াশ রোহান

তিশা তার বক্তব্যে আর‌ো বলেন, অনেক প্রতিবন্ধকতার মধ্যেও নির্মাতারা সিনেমা বানান শুধুমাত্র দর্শকদের জন্য। দর্শক যখন প্রেক্ষাগৃহে সপরিবারে সিনেমা দেখতে আসেন, তখনই আসলে এতো পরিশ্রম সার্থক হয়। আর ভবিষ্যতে নির্মাতাদের আরও সিনেমা বানাতে সাহস যোগায়।

তিশা আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, সিনেমাটির টিজার, ট্রেলার ও গান বেশ সাড়া পেয়েছি আমরা। আমার বিশ্বাস সিনেমাটি সবার ভালো লাগবে।

বক্তব্য রাখছেন অরুণ চৌধুরী

অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্রটির নির্মাতা অরুণ চৌধুরী জানালেন চলচ্চিত্রটি দেখে কেউ নিরাশ হবেন না। চলচ্চিত্রটির নায়ক ইয়াশ রোহান নিজের দ্বিতীয় চলচ্চিত্র সকলকে নিয়ে দেখার জন্য দর্শককে আমন্ত্রণ জানান।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন চলচ্চিত্রটির অভিনেতা নরেশ ভূঁইয়া, প্রযোজক আনোয়ার আজাদ, অভিনেত্রী আফরোজা বানু, নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী, কণ্ঠশিল্পী আগুন প্রমুখ। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন চিত্রনাট্যকার ও উপস্থাপক রুম্মান রশীদ খান।

উল্লেখ্য, ‘মায়াবতী’ চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করছে আনোয়ার আজাদ ফিল্মস ও অনন্য সৃষ্টি অডিও ভিশন। চলচ্চিত্রটির পরিবেশনায় আছে জাজ মাল্টিমিডিয়া এবং মার্কেটিং কনসালটেন্ট হিসেবে আছে থ্রি আর মিডিয়া। আগামী মাসে চলচ্চিত্রটি দেশের বাইরে মুক্তি দেয়া হবে।