বাচ্চু ভাই আমাকে গিটার শিখিয়েছেন, তিনি আমার গুরু: পার্থ বড়ুয়া

পেইজ থ্রি ডেস্ক ।।

গিটারের জাদুকর আইয়ুব বাচ্চুর অকাল প্রয়াণে শোকে কাতর সারাদেশ। দেশের বাইরেও শোকের ছোঁয়া। আইয়ুব বাচ্চুর সহযাত্রী বন্ধুরা আজ বাকরুদ্ধ।

জনপ্রিয় ব্যান্ড সোলসের গায়ক পার্থ বড়ুয়া বলেন, ‘আমাকে হাতে ধরে গিটার শিখিয়েছেন বাচ্চু ভাই, ওয়ান টু ওয়ান যেটা বলে। তারপর অনেকদিন তাঁর সঙ্গে কিবোর্ড বাজিয়েছি। তিনিই আমাকে ঢাকায় নিয়ে এসেছেন। আমার পেশাদার গানের জীবনের শুরুটাও তাঁর হাত ধরে।’

চট্টগ্রাম থেকে পার্থ বড়ুয়াকে ঢাকায় আনার পর আইয়ুব বাচ্চু নিজের সঙ্গে কাজে যুক্ত করেন। অনেক কিছুই পার্থ বড়ুয়াকে হাতে ধরে শিখিয়েছেন। পার্থ বড়ুয়ার মতে, ‘জীবনে যা কিছু শিখেছি বা যা কিছুই হতে পেরেছি তার সবই বাচ্চু ভাইয়ের কাছ থেকেই। এত তাড়াতাড়ি তিনি চলে যাবেন, এটা কল্পনারও বাইরে। এই সময়টায় না গেলেই কি হতো না। খুব তাড়াতাড়িই চলে গেলেন বাচ্চু ভাই।’

পার্থ বড়ুয়া জানালেন, ‘সোলসের কার্যক্রম ২০০৩ সাল থেকে বন্ধ ছিল। এরপর বাচ্চু ভাইয়ের কারণে আবার শুরু করেছি। তিনি সাহস দিয়েছিলেন। বলছিলেন, পারবি। চেষ্টা কর। আমরা এক পর্যায়ে পাঁচ-ছয় মাস মহড়া করলাম। আবার গানের মঞ্চে ফিরলাম। বাচ্চু ভাইয়ের সঙ্গেই মেডিকেল কলেজের একটা শো করেছিলাম। যদিও আমরা কোনো ধরনের সম্মানী ছাড়াই অনুষ্ঠানটি করি, তারপরও বাচ্চু ভাই আমাদেরকে ৩০ হাজার টাকা সম্মানী দেন। বলছিলেন, এটা রাখ তোরা। জোর করেই দিয়েছিলেন। শুধু কি তাই, তার আগেই আমাদের মঞ্চে তোলেন। আমরা সেদিন ৩০ মিনিট পারফর্ম করি।’

আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে শোটি করার পর থেকে সোলসের ব্যস্ততা বাড়তে শুরু করে। পার্থ বড়ুয়ার মতে, ‘মঞ্চে সেদিনের শোর পর থেকেই সোলস আবার ঘুরতের শুরু করল। এরপর আর থামেনি, এখনো চলছে। তিনি আমাদের উৎসাহ, অনুপ্রেরণা ও জোর করে ফেরান।’

 

Print Friendly, PDF & Email

মতামত দিন