যুক্তরাষ্ট্রে “দেবী” : গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের জন্য আবেদন

যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত ২০টি শহরে মহাসমারোহে চলছে জয়া আহসান প্রযোজিত ও অনম বিশ্বাস পরিচালিত বাংলাদেশ সরকারের অনুদানপ্রাপ্ত ছবি “দেবী”।

নিউইয়র্কে শুক্রবার জ্যামাইকা মাল্টিপ্ল্যাক্সে ছবিটির প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন চারটি শো এবং পরদিন চারটি শো’র সবকটি হাউজ ফুল ছিল।

শো’তে হাজারো প্রবাসী দর্শকদের পাশাপাশি “দেবী” দেখতে এসেছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন, নিউইয়র্কের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা।

ছবিটি দেখতে এসেছিলেন যুক্তরাষ্ট্র সফররত এবং নিউইয়র্কে বসবাসরত বাংলাদেশের তারকা শিল্পীরা। দেবী ছবির যুক্তরাষ্ট্রের ডিস্ট্রিবিউটর প্রতিষ্ঠান বায়েস্কোপ ফিল্মসের কর্নধার রাজ হামীদ চেয়েছিলেন তারকাদের দাওয়াত করে হলে আনবেন।

কিন্তু সেলিব্রেটিদের সবাই নিজেদের অর্থে টিকেট কিনে সপরিবারে এবং স্বজন-বন্ধুদের সাথে নিয়ে ছবিটি দেখেছেন। নিউইয়র্কে দেবী ছবিটির প্রচারণার সাথে সংশ্লিষ্ট থাকার পরও আমি নিজে টিকেট কিনে সস্ত্রীক-সপরিবারে ছবিটি দেখেছি।

বাংলাদেশের কোনো ছবির প্রিমিয়ার শো’র টিকেট শতভাগ সোল্ড আউট হয়ে যাওয়ারও এক বিরল উদাহরণ সৃষ্টি করল নিউইয়র্ক। আর এই ঘটনাটি সম্ভব হয়েছে জয়া আহসানের সহকর্মী দেশের তারকা, যারা নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন তাদের এবং অবশ্যই চলচ্চিত্রপ্রেমী সাংবাদিকদের সহযোগিতার কারণে।

এদিন দেবী ছবিটি দেখতে হলে এসেছিলেন রিটা ফারিয়া রিচি সোলায়মান, রোমানা খান, মোজেজা আশরাফ মোনালিসা, নওশীন নাহরীন মৌ, কুমকুম হাসান, আঁখি চৌধুরী ও আলীফ চৌধুরী।

আরো ছিলেন সৈয়দ জাকির আহমেদ রনি, থিয়েটার কর্মী শিবলী নোমানী, স্বাস্থ্য বিষয়ক টিভি অনুষ্ঠান উপস্থাপক ডা. সজল আশফাক, টিভি উপস্থাপিকা সাদিয়া খন্দকার, মডেল আলোকচিত্রী আরমান হোসেন বাপ্পী ও জায়েদ ইসলাম প্রমুখ।

প্রিমিয়ার শো’র আগে এবং পরে সংক্ষিপ্ত এক অনুষ্ঠানে তারকারা দর্শকদের উদ্দেশে কথা বলেন। সূচনা বক্তব্য রাখেন বায়েস্কোপ ফিল্মসের কর্নধার রাজ হামীদ ও নওশাবা রুবনা রশীদ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক হাসানুজ্জামান সাকী। এ সময় রেফেল ড্র’তে দুই বিজয়ীর হাতে দেবী ছবিটির জন্য বিপ্লব সাহার বিশেষ ডিজাইন করা বিশ্বরঙ-এর শাড়ি এবং একটি পাঞ্জাবী তুলে দেন নওশাবা রুবনা রশীদ।

অনুষ্ঠানে সহযোগিতায় ছিলেন প্রথম আলো উত্তর আমেরিকার সাংবাদিক তোফাজ্জল লিটন ও ইঞ্জিনিয়ার রাহাত।

বায়েস্কোপ ফিল্মস জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত বিশটি শহরে ছবিটি চলেছে। আরও পাঁচটি শহরে প্রদর্শনীর বিষয়ে আলোচনা চলছে।

এরমধ্যে নিউইয়র্কের জ্যামাইকা মাল্টিপ্ল্যাক্সে ছবিটি চলবে সপ্তাহজুড়ে। শুধু নিউইয়র্কেই ছবিটির শো হবে ৩২টি। এটি শুধু বাংলাদেশেরই নয়, পশ্চিমবঙ্গ সহ গোটা বাংলা চলচ্চিত্রের জন্যই একটি রেকর্ড।

সম্ভবত প্রথম বাংলাদেশি ছবি হিসেবে বিদেশের মাটিতে সবচেয়ে বেশি আয় করা ছবির তালিকায়ও নাম লেখাতে যাচ্ছে “দেবী”।

যুক্তরাষ্ট্রে দেবী ছবির ডিস্ট্রিবিউটর সিনেমা ফেরীঅলা রাজ হামীদ বিরল এই রেকর্ডটিকে আনুষ্ঠানিক রূপ দিতে চান। তিনি ইতোমধ্যে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান পাওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। যেকোনো বিষয়ে প্রথম কোনো রেকর্ড সৃষ্টি করলে তা গিনেস বুকে স্থান পাওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত হয়।

আপনারা সবাই প্রার্থনা করেন। এটি গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান পেলে তা শুধু জয়ার দেবী-ই স্থান পাবে না। স্থান পাবে বাংলা চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রের ঘুরে দাঁড়াবার এই সময়ে এটি আমাদের জন্য খুব দরকার।

অারেকটি মজার বিষয় আপনাদের জানাতে চাই। চলচ্চিত্রের খোঁজ খবর যারা রাখেন তারা জানেন, এ সপ্তাহেই অমিতাভ বচ্চন ও আমির খান অভিনীত বলিউডের “থ্যাগস অব হিন্দুস্তান” ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। জ্যামাইকায় ছবিটির প্রতিটি শোতে ছিল গুটি কয়েক দর্শক।

তারই পাশে দেবী ছবির প্রতিটি শো কানায় কানায় পূর্ণ। বলিউডের সাথে কোনোভাবেই আমি তুলনা করছি না। কিন্তু দৃশ্যটি দেখতে কী যে ভাল লেগেছে তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারবো না।

দেবী ছবির পরিচালক অনম বিশ্বাস, প্রযোজক ও ছবির নায়িকা জয়া আহসান, চঞ্চল চৌধুরী, শবনম ফারিয়া, ইরেশ যাকের ও অনিমেষ আইচ, দেবী ছবির বাংলাদেশের মার্কের্টিং কনসালট্যান্ট বিনোদন সাংবাদিক রুম্মান রশীদ খান, যুক্তরাষ্ট্রের বায়েস্কোপ ফিল্মসের কর্নধার রাজ হামীদ ও নওশাবা রুবনা রশীদসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানাই।

যারা এখনো দেবী ছবিটি দেখেননি তারা আজই জ্যামাইকা মাল্টিপ্ল্যাক্সে ছবিটি দেখতে আসুন। প্রতিদিন পাঁচটি করে শো চলবে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।

(লেখকের ফেসবুক হতে)

মতামত দিন