চলে গেলেন কবরী

করোনায় মারা গেলেন খ্যাতিমান অভিনেত্রী সারাহ কবরী। শুক্রবার দিবাগত রাত ১২ -২০ মিনিটে মারা গেছেন। শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে গত ১৫ এপ্রিল সন্ধ্যা থেকে লাইফসাপোর্টে ছিলেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। কবরীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ছেলে শাকের চিশতী গত ৫ এপ্রিল তার করোনা পজিটিভ হয়। সেদিন রাতেই কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। পরে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে আইসিইউ শয্যা খালি না থাকায় তাকে ৮ এপ্রিল দুপুরে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সুভাষ দত্তের পরিচালনায় ১৯৬৪ সালে ‘সুতরাং’ সিনেমা দিয়ে চলচ্চিত্রে নাম লেখান কবরী৷ হীরামন, ময়নামতি, চোরাবালি, পারুলের সংসার, বিনিময় এরপর ‘বাহানা’, ‘তিতাস একটি নদীর নাম’, ‘রংবাজ’, ‘সারেং বউ’, ‘সুজন সখী’সহ অসংখ্য কালজয়ী সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি৷ সিনেমা প্রযোজনাও করেছেন এই অভিনেত্রী। পরিচালক হয়েও নির্মাণ করেছেন সিনেমা৷ দীর্ঘ ১৪ বছর পর হাত দিয়েছেন দ্বিতীয় সিনেমা নির্মাণে। ‘এই তুমি সেই তুমি’ নামের সিনেমাটি পরিচালনার পাশাপাশি এর কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন তিনি। কবরী পরিচালিত প্রথম সিনেমার নাম ‘আয়না’। ১৯৫০ সালের ১৯ জুলাই চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী উপজেলাতে জন্মগ্রহন করেন অভিনেত্রী। ১৯৬৩ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে নৃত্যশিল্পী হিসেবে মঞ্চে আবির্ভাব হয়েছিল তার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *